মঙ্গলবার, আগস্ট ৪, ২০২০
লেখালেখি ডেস্ক
১৯ জুলাই ২০২০
১০:০২ পূর্বাহ্ণ
Mini Habits তৈরির মাধ্যমে খারাপ অভ্যাস(চরিত্র)বদলানোর উপায় ::
Mini Habits তৈরির মাধ্যমে খারাপ অভ্যাস(চরিত্র)বদলানোর উপায় ::-thetopnews24.com

১৯ জুলাই ২০২০ ১০:০২ পূর্বাহ্ণ

একটি একটি ইট বা পাথর দিয়ে যেমন বৃহৎ অট্টালিকা তৈরি করা যায় তেমনি একটি একটি ছোট ছোট ভালো কাজের অভ্যাস করে জীবনটাকে সুখময় করা যায় । অভ্যাস হলো এমন একটি বিষয় যা আমরা চিন্তা ভাবনা ছাড়াই হয়ে যায় বা করে ফেলি ,যেমন বহু শতবছর আগে এরিসটেটল বলেছিলেন “95% of everything you do is the result of habit.”— Aristotle’ । তবে যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপে বহু গবেষণার ও পর্যালোচনার পরে সম্প্রতি বিজ্ঞানীরা বলছেন প্রায় ৭০ভাগ কাজ প্রতিদিন আমরা যা করি তা অভ্যাস থেকে করি । সুতরাং যিনি ভালো অভ্যাসে গড়ে উঠেছেন তার প্রায় সব কাজ ভালো হবে সৎ হবে । খারাপ অভ্যাসে গড়ে উঠলে সর্বনাশ হবে । অভ্যাস খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। কেউ যদি মনে করেন কাল থেকে একটি করে বই পড়ার অভ্যাস করবো বা কাল থেকে আধা ঘন্টা মেডিটেশন করবো বা ব্যায়াম করবো অথবা কাল থেকে ১০টি করে হাদিস পড়বো বা ১০ পাতা কোরআন পড়বো ইত্যাদি দেখা গেলো কিছুই হলো না । কিন্তু দেখা গেলো কাল থেকে একটি গোটা বই না পড়ে অন্তত: ১০ পাতা পড়বো বা অন্তত: ৫ মিনিট তো মেডিটেশন করবো , বা অন্তত: দুইটি করে হাদিস বুঝে মনে রাখার মত করে পড়বো, বা অন্তত: একপাতা বা একরুকু করে কোরআন পড়বো যতকাজ থাক করবোই ; দেখা গেলো সেটা সহজ হচ্ছে । এই ভাবেই ভালো অভ্যাস তৈরি শুরু করতে হয় । এটাকে গবেষকরা Mini Habits বলছেন । যার মাধ্যমে জীবনটাকে পরিবর্তন করা অনেকটা সহজ । একবারে পর্বতের চূড়ায় ওঠা যায় না । ছোট ছোট প্রাকটিসে চুড়ায় পৌছানো যায় । পুরনো অভ্যাসকে( যেমন খারাপ অভ্যাস) বদলানো যায়না ( কারণ ব্রেনের ডিপ বিলিভ সিস্টেম হিসেবে, সাব কনসাস মাইন্ডে “basal ganglia”তে নিউরোনাল ইন্টারকানেকটেট পথওয়ে হিসেবে তৈরি থাকে ফলে প্রাত্যহিক কাজে তা প্রকাশ পায়) ফলে নতুন তথা ভালো অভ্যাস তৈরি করতে গেলে নতুন নিউরোনাল ইন্টারকানেকটেট পথওয়েতে পরিনত করে নিতে হয়। ফলে বারে বারে নিয়মিত ভালো অভ্যাস করতে শুরু করলে খারাপ অভ্যাসের পাথওয়েগুলো সরু হতে থাকে ভালোটা প্রভাবিত বা শক্তিশালী হতে থাকে । ব্যাপারটা এত সহজ নয় কিন্তু প্রাকটিস বা চর্চার মাধ্যমে এক সময় সহজ হয়ে যায় । যেমন মিথ্যা কথা বলা , গীবত করা, গালিগালাজ করা, রেগে যাওয়া, অহংকার করা ,প্রতারনা, চারিত্রিক দোষ-ত্রুটি সহ আরও কতকি । বদঅভ্যাসগুলো ত্যাগ করতে চাইলে একটা একটা করে ত্যাগ করতে হবে যেমন সিদ্ধান্ত নিলাম, কাল নতুন সকাল নতুন দিন থেকে বদনাম বা গীবত করবোনা , মাঝে মধ্যে হয়ে যাবে ভয় নাই ভাবতে হবে- ছি ! কি করলাম ( আসতাগফেরুল্লাহ বলতে পারলে তো খুবই ভালো)। তবে এখানে একটি জরুরি কথা মনে রাখতে হবে ‘অভ্যসের পরিবর্তন’(habits change) বিষয়টি বুঝতে হবে । খারাপ অভ্যাসের জায়গায় ভালো অভ্যাস তৈরি না করলে খারাপটা আবার চলে আসতে পারে । তাই বাদনাম করবো তো নাই বরং কাল থেকে ভালো কাজের এপ্রিসিয়েট করবো, অভিনন্দন ,প্রশংসা করবো , উত্তম কাজে উৎসাহ দিবো ইত্যাদি কাল থেকে অভ্যাস শুরু করতে হবে যা এতদিন অভ্যাসে ছিলো না এবং তা অন্তর দিয়ে কৃত্তিম নয় লোক দেখানো বা অভিনয় নয় বরং সত্যিকার ভালোবাসার সাথে । দুই তিন সপ্তাহ বা দুই-তিন মাস ব্রেনের basal gangliaতে নতুন নিউরোনাল ইন্টারকানেকটেট পাথওয়ে হিসেবে তৈরি হয়ে যাবে । -- আল্লাহ কোনো জাতির ভাগ্য পরিবর্তন করেন না, যতক্ষণ না সেই জাতি নিজেই নিজের ভাগ্য পরিবর্তন করে'-সুরা রাদ । রাসুল(সা:) বলেন ‘“সমস্ত কাজের ফলাফল নির্ভর করে নিয়তের উপর,-। সুতরাং ভালো হবার ,সৎ হবার সিদ্ধান্ত বা ইচ্ছা নিজে থেকেই নিতে হবে । চালকির অভ্যাসে, খারাপ অভ্যাসের মাধ্যমে কখনই সুখ ও সফলতা পাওয়া যাবেনা (সেটা যে ভাবেই গড়ে উঠুক- ছোট বেলা থেকে নেতিবাচক ভাবে গড়ে উঠা পারিবারিক শিক্ষা ও নেতিবাচক পরিবেশ , জেনেটিক্যাল ফ্যাক্টর, নৈতিক শিক্ষার অভাব , পারিপার্শ্বিকতা ,জীবন বোধের চেতনার অভাব-----) । যার উদ্দেশ্য (নিয়ত)খারাপ তার সফলতা আসবে কি করে । আমাদের খারাপ অভ্যাস পরিবর্তনের গভীর ইচ্ছা তথা সিদ্ধান্ত নিতে হবে যদি জীবনটাকে সুন্দর করতে চাই নতুবা সম্ভব নয় । আমি অনেক আলোচনায় শিক্ষার্থীদের বলে থাকি – একপা একপা করে হাজার মাইল যাওয়া যায় কিন্তু একপা তো ফেলতে শিখতে হবে । ---সবাইকে অনেক ভালোবাসি । জীবনটা সবার সুন্দর হোক ,সফল হোক । শিক্ষার্থীদের প্রতি স্নেহ ও ফেসবুক বন্ধুদের প্রতি শ্রদ্ধা ।
মো.আলমাসুর রহমান
Counsellor, Mind Gym ,
East West University
১৯/০৭/২০

সম্পর্কিত খবর