রবিবার, নভেম্বর ১, ২০২০
দেশজুড়ে ডেস্ক
৯ অক্টোবর ২০২০
১০:৪৮ পূর্বাহ্ণ
জয়পুরহাটের ক্ষেতলালে লোভে আড়াই লক্ষ টাকা তুলে দিলেন প্রতারকের হাতে
জয়পুরহাটের ক্ষেতলালে লোভে আড়াই লক্ষ টাকা তুলে দিলেন প্রতারকের হাতে-thetopnews24.com

৯ অক্টোবর ২০২০ ১০:৪৮ পূর্বাহ্ণ

আখতারুজ্জামান তালুকদার, জয়পুরহাট প্রতিনিধিঃ

জয়পুরহাটের ক্ষেতলালে লোভে পরে এক ব্যক্তি আড়াই লক্ষ টাকা ব্যাংক থেকে উত্তোলন করে তুলে দিলেন অপরিচিত হাজীবেশে এক রিয়াল প্রতারকের হাতে। প্রতারণা করতে নিয়েছেন অভিনব কৌশল।

জানা যায়, বৃহস্পতিবার ৮ অক্টোবর দুপুর ২ টায় জেলার ক্ষেতলাল উপজেলা কৃষি ব্যাংক শাখা থেকে উপজেলার বিনাই গ্রামের রুহুল আমিন ভুট্র হাজী নামে এক ব্যক্তির ২ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা নিয়ে উধাও হয়েছে আরেক হাজীবেশি প্রতারক।

প্রতারণার ভুক্তভোগী ভুট্র হাজী জানান, গায়ে জুব্বা, মাথায় পাগড়ী পড়া সুন্দর বেশ ভূষায় সজ্জিত হুজুর/হাজী বেশে ১ জন ফেরিওয়ালা হঠাৎ আমার সাথে কথা বলতে চায়। কথা বলার এক পর্যায়ে বলে ভাই আমি আপনাকে গোপনে কিছু বলতে চাই। শুনতে চাইলে সে বলে আমি বড় বিপদে পড়েছি সৌদির কিছু রিয়াল নিয়ে। যা বাংলাদেশী টাকায় ২৫ থেকে ৩০ লক্ষের মত হবে। আরও বলে আমি চিটাগাং চাকুরী করার সময় আমার মালিক মৃত্যুকালে পরিবারের সবার অজান্তে আমাকে এগুলো দিয়েছেন। আমি পুলিশের ভয়ে বাংলাদেশি টাকা করতে পারছি না। মেহেরবানী করে একটু সাহায্য করেন। পরে আমাকে সৌদি রিয়ালগুলো দেখান ও দু'টি নোট দেন আমি পরদিন বগুড়া গিয়ে বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে রিয়াল দু'টি দিয়ে টাকা নিয়ে আসি। এর দু’দিন পর ওই লোক আবারও আসেন ও রিয়াল ভাঙ্গানোর কথা শুনে খুশি হন। আমাকে আবারও সৌদি রিয়ালের দু'টি বান্ডিল দেখিয়ে বলেন, ভাই আল্লাহ্’র দোহাই আমাকে যা পারেন কিছু নগদ অর্থ দিয়ে এগুলো নিয়ে আমাকে রক্ষা করেন।

জয়পুরহাটের ক্ষেতলালে লোভে আড়াই লক্ষ টাকা তুলে দিলেন প্রতারকের হাতে

আমি তার কথা শুনে ওই দিনই (বৃহস্পতিবার) ক্ষেতলাল কৃষি ব্যাংকের নিজ এ্যকাউন্ট থেকে নগদ ২ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা উত্তোলন করে তাকে দেই। ব্যাংকের নিচে এসে আমাকে সে ১ হাজার টাকার একটি নোট দিয়ে খুচরা করে (ভাংতি) করে এনে দিতে বলেন। আমি এসে দেখি ওই লোক আর সেখানে নেই। এরপর বাড়ীতে এসে ব্যাগ খুলে দেখি পেপার দিয়ে মোড়ানো সাবান ও কিছু পত্রিকা ছাড়া আর কিছুই নেই।

এপ্রতারণা বিষয়ে ক্ষেতলাল থানা অফিসার ইনচার্জ নিরেন্দ্রনাথ মন্ডল বলেন, রিয়াল প্রতারকের ফাঁদে পরে এক ব্যক্তি ২ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা হারিয়েছেন। ঘটনার খবর পেয়ে সংঙ্গে সংঙ্গে আলামত সংগ্রহের জন্য ব্যাংকের সিসি ক্যামেরা ফুটেজ সংগ্রহ করেছি।প্রতারককে গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে।

সম্পর্কিত খবর