শনিবার, আগস্ট ৮, ২০২০
দেশজুড়ে ডেস্ক
৩০ জুন ২০২০
৯:৪১ পূর্বাহ্ণ
সাঘাটায় পানিবন্দী বানভাসি প্রায় ৩০ হাজার মানুষ
সাঘাটায় পানিবন্দী বানভাসি প্রায় ৩০ হাজার মানুষ

৩০ জুন ২০২০ ৯:৪১ পূর্বাহ্ণ

আল কাদরি কিবরিয়া সবুজ, (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি:- উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢল ও গত কয়েক দিনের প্রবল বর্ষণে গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলার যমুনা তীরবর্তী জুমারবাড়ী, সাঘাটা, ঘুড়িদহ, ভরতখালী ও হলদিয়া ইউনিয়নের প্রায় ৩০ হাজার মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। বন্যা কবলিত এলাকায় পাট, আমন বীজতলা, পটল, শাক-সবজি, বর্ষালী রোপা আমন বীজতলাসহ শত শত একর জমির ফসল পানিতে নিমজ্জ্বিত হয়েছে। পানিবন্দি মানুষ গরু, ছাগল, হাঁস-মুরগী নিয়ে চরম বিপাকে পড়েছে। বিশুদ্ধ পানি ও গো-খাদ্যের সংকট দেখা দিয়েছে। পানি বৃদ্ধির সাথে সাথে সাঘাটা ইউনিয়নের দক্ষিণ সাথালিয়া, উত্তর সাথালিয়ার ফ্লাস সেন্টার, গোবিন্দী, হাটবাড়ি, বাঁশহাটা, হাসিলকান্দি মৌজার প্রায় ২শ’ পরিবারের ঘরবাড়ী নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। ভাঙ্গনের শিকার এসব পরিবার অন্যত্র গিয়ে আশ্রয় নিচ্ছে।

সাঘাটা ইউপি চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন সুইট জানান, আমার ইউনিয়নের প্রায় ৪ হাজার মানুষ পানিবন্দী হয়ে পড়েছে। এ পর্যন্ত পানিবন্দী পরিবারের জন্য সরকারী ভাবে কোন ত্রাণ সহায়তা পাওয়া যায়নি।

হলদিয়া ইউপি চেয়ারম্যান ইয়াকুব আলী প্রধান জানান, আমার ইউনিয়নের সকল মানুষই পানিবন্দী হয়ে পড়েছে। এ পর্যন্ত পানিবন্দী পরিবারের জন্য সরকারী ভাবে কোন ত্রাণ সহায়তা পাওয়া যায়নি।

জুমারবাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান রোস্তম আলী আকন্দ জানান, আমার ইউনিয়নের ব্যাঙ্গারপাড়া, থৈকড়েরপাড়া, কাঠুর, পূর্ব আমদিরপাড়া, কুন্দপাড়া গ্রামের প্রায় ১০ হাজার মানুষ পানিবন্দী হয়ে পড়েছে। এসব পানিবন্দী মানুষের জন্য সরকারীভাবে কোন আর্থিক সাহায্য পাওয়া যায়নি।

সম্পর্কিত খবর